Blog

জেনে নেই বিজ্ঞানসম্মত উপায়ে মানবদেহে এন্টিবডি তৈরি হওয়ার উপায়সমূহ।

by in Health Tips, unani April 24, 2020

স্বাস্থ্যই সম্পদ – প্রচলিত এই কথাটির যথার্থতা এবং সত্যতা সম্পর্কে আমরা প্রায় সকলেই জানি । প্রত্যেকটি মানুষের জীবনেই অত্যন্ত মূল্যবান সম্পদ হল তার নিজ স্বাস্থ্য, যার উপর প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে নির্ভর করে। তাই আমাদের, স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল।

এন্টিবডি:- রক্তকোষে তৈরি একপ্রকার রোগপ্রতিরোধক্ষম প্রোটিন যৌগ। এন্টিবডি রোগ প্রতিরোধ করে। এন্টিবডি ৫ প্রকার, IgA, IgE, IgG, IgM এবং IgD.। এন্টিজেন সক্রিয় হলে রোগের উপসর্গ দেখা দেয়, এসময় এন্টিবডিও সক্রিয় হয় এবং রোগ প্রতিরোধ করার চেষ্টা করে। কার্যপদ্ধতি: কোনো এন্টিজেন দেহে আক্রমণ করলে রক্তস্রোতে এন্টিবডি নিঃসৃত হয়। নির্দিষ্ট এন্টিজেনের জন্য নির্দিষ্ট এন্টিবডি থাকে। এগুলো পরস্পরের রেসিপ্টর সাইটে যুক্ত হয় এবং এন্টিজেন নিষ্ক্রিয় হয়ে যায় তাই আমাদের শরীরে সকলের এন্টিবডি প্রয়জনীয়তা অপরীসিম এবং এন্টিবডি কমে যাওয়ার ফলে দিন দিন স্বাস্থ্য দুর্বল হয়ে পড়ে। আমাদের শরীরে এন্টিবডি কমে যাওয়ার প্রধান কারণসমূহ।

কারনসমূহঃ- একজন মানুষের এন্টিবডি অনেক কারন ই দায়ী হতে পারে, তন্মধ্যে ছেলেদের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত হস্তমৈথুন এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত সাদাস্রাব । এছাড়া ঠিকমত খাওয়া-দাওয়া না করা, অতিরিক্ত পরিশ্রম করা, মানুষিক টেনশন বেশী করার কারনেও একজন মানুষ এন্টিবডি কমে যেতে পারে । পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমান ঘুম এবং শরীরে চাহিদামাফিক ভিটামিন, পুষ্টির অভাবেও দেখা দিতে পারে । এছাড়া বয়ঃসন্ধিকালে শরীরের প্রতি অবহেলা পরবর্তীতে আপনার কারন হতে পারে । আবার অনেক সময় সন্তান মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় মা এর পুষ্টিহীনতার কারনে পরবর্তীতে সন্তানের মাঝে সমস্যা পরিলক্ষিত হয়ে থাকতে পারে । অনেকে আবার ভাল ভাল খাবার দাবার গ্রহন, ঠিকমত ঘুমানো তথা সুখে-শান্তিতে বসবাসের পরও ভুগতে পারে, তাদের ক্ষেত্রে মুলত পাকস্থলী কার্যক্ষমতা অথবা হজম শক্তির ঘাটতি, হস্তমৈথুন, কোষ এর স্থিতিস্থাপকের দুর্বলতা, অ্যালকোহল অথবা নেশা জাতীয় দ্রব্যাদি গ্রহন দায়ী হতে পারে, ডায়বেটিস, মেহ,প্রমেহ, যন, যন প্রসাব, ইত্যাদি।
চিকিৎসাঃ-যে সকল যুবক-যুবতী তাদের এন্টিবডি ও স্বাস্থ্য দুর্বল জন্য বিষণ্ণতা এবং হীনমন্নতায় ভুগছেন তাদের জন্য আয়ুর্বেদা হেলথ কেয়ার” নিয়ে এসেছে “আয়ুর্বেদা ন্যাচারাল ভিটামিন” নামক এমন এক কার্যকারী ঔষধ, যা সেবনের ৬০-৭০ দিনের মধ্যে শরীরে তৈরি হবে পর্যাপ্ত এন্টিবডি যা আপনার রোগ প্রতিরোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে সহায়াতা করবে। আপনি পাবেন পূর্ণ এন্টিবডি এবং শক্তিশালী হওয়ার পূর্ণ নিশ্চয়তা ।“আয়ুর্বেদা হেলথ কেয়ার এর তৈরিকৃত এই ন্যাচারাল ভিটামিন প্রোডাক্টটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক এবং ভেষজ উপাদান এর উপযুক্ত ব্যাবহার, মিশ্রণ এবং আয়ুর্বেদা ফর্মুলায় তৈরি, যা কার্যকারিতার ক্ষেত্রে আপনাকে দিতে পারে শতভাগ সন্তুষ্টি এবং উক্ত প্রোডাক্টটি সম্পূর্ণ ন্যাচারাল উপাদান দ্বারা তৈরিকৃত হওয়ায় এই ঔষধ সেবনে নেই কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ।
“ন্যাচারাল ভিটামিন” সেবনকাল :- ৬০-৭০ দিন । প্রয়োজনীয়তা :- ১ কোর্স

ক্রিয়া :- এন্টিবডি তৈরিতে সহায়তা করে, নতুনকোষ তৈরি, বলকারক, পুষ্টিকারক, রুচিবর্ধক, হজমকারক, ভিটামিন এবং ফ্যাট এর ঘাটতি দূরীকরন, স্মৃতিশক্তি বর্ধক, শারীরিক অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সমূহের কার্যক্ষমতা বর্ধক, মাংসপেশির সুগঠনবর্ধক, ওজন বর্ধক, প্রফুল্লকারক, পাশাপাশি মানব শরীরে রোগ প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে ।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া :- সম্পূর্ণ পার্শ্ব – প্রতিক্রিয়ামুক্ত । স্থায়ীত্ব :- এই ঔষধের ক্রিয়া স্থায়ী হিসেবে বিবেচিত।

আমাদের কিছু কথা :- এন্টিবডি তৈরিতে ও শক্তিশালী হতে সহায়তাকারী আমাদের এই “ন্যাচারাল ভিটামিন” প্রোডাক্টটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক এবং ভেষজ উপাদানের সমন্বয়ে তৈরিকৃত, পাশাপাশি আমাদের প্রোডাক্টটি সম্পূর্ণ শারীরবৃত্তীয় উপায়ে আপনাকে স্বাস্থ্যের অধিকারী হতে সহায়তা করে থাকে, তাই আমাদের এই প্রোডাক্টের কার্যকারিতার ক্ষেত্রে আপনি রাখতে পারেন শতভাগ আস্থা । এছাড়া উক্ত প্রোডাক্টটির সেবনবিধিও অত্যন্ত সহজ এবং ঝামেলামুক্ত । আর তাই, আজ থেকে যে সকল তরুন-তরুণী তাদের দুর্বল স্বাস্থ্য নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগছেন, তাদের জন্য আমাদের এই “ন্যাচারাল ভিটামিন”প্রোডাক্টটিই হোক বিশ্বস্ত সঙ্গী, এটাই আমাদের প্রত্যাশা ।

উক্ত প্রোডাক্টটির মূল্য :- আমাদের এই ন্যাচারাল ভিটামিন প্রোডাক্টটির মূল্য – মাত্র ৪১৫০ টাকা । 
হেল্পলাইন – ০১৮৩৮ ২৯৭৭৪৫, ০১৭৭ ২৭২৭৪৮৫( সকাল ১০ টা – রাত ১০ টা )।

প্রসাবে ক্ষয় / যৌন দুর্বলতা / ধাতু ক্ষয় / ধাতু দুর্বলতা/ ঘন ঘন প্রসাব ?

আমাদের দেশের অধিকাংশ পুরুষের মাঝে যৌনতা বিষয়ক জ্ঞান স্বল্পতা এবং যৌবনকালের শুরুতে নিজ কতৃক বিভিন্ন ভুলত্রুটির ফলে পরবর্তীতে যৌনস্বাস্থ্য জনিত নানাবিধ সমস্যা পরিলক্ষিত হয়ে থাকে, যা মূলত মেহ / প্রমেহ / ধাতুঝরা / ধাতু দুর্বলতা / ধাতুক্ষয় / প্রসাবে ক্ষয় / প্রদর রোগ নামে পরিচিত । উক্ত রোগটি সরাসরি/তৎক্ষণাৎ শরীরের উপর কোন প্রকার প্রভাব তৈরি করে না বিধায় উক্ত রোগটির সৃষ্টি সম্পর্কে আক্রান্ত পুরুষ মানবদেহটি সহজে তেমন কিছু অনুভব ও করতে পারে না, কিন্তু উক্ত রোগটি খুব ধীরে ধীরে শরীরের উপর প্রভাব ফেলে শরীরের স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা সম্পুর্ন নষ্ট করে দেয় । এক কথায় বলতে গেলে – ইহা নিজে কোন রোগ নয় বরংচ ইহা অন্যান্য অনেক শারীরিক রোগের সৃষ্টিকারী এবং আমাদের দেশে পুরুষ সমাজের অনেকেই উক্ত রোগের ভুক্তভোগী । আর তাই, আজ আমরা আলোচনা করছি – পুরুষ মানবদেহে উক্ত রোগসমূহ সৃষ্টির কারন, লক্ষন এবং শতভাগ কার্যকরী সমাধানসমূহ সহ পুর্ন বিস্তারিত গাইডলাইন ।
কারণসমূহ :- আমাদের দেশের পুরুষদের মাঝে উক্ত সমস্যা সৃষ্টির প্রধান এবং অন্যতম কারণই হল যৌবনকালের শুরুতে অধিক পরিমানে হস্তমৈথুন করা । এছাড়া অল্প বয়সে যৌনতা বিষয়ক অধিক বেশী চিন্তা করা, অধিক বেশী পর্ণ দেখা, অতিরিক্ত বেশী যৌন মিলন করা সহ অনিয়ন্ত্রিত এবং অনিরাপদ যৌনাচার উক্ত রোগসমূহ পুরুষ মানবদেহে সৃষ্টির অন্যতম কারন হিসাবে বিবেচিত । পাশাপাশি অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ, অতিরিক্ত মানুষিক দুঃশ্চিন্তা, হজমের গন্ডগোল, শারীরিক পুষ্টির অভাব সহ অন্যান্য আরো নানবিধ কারনে উক্ত সমস্যাসমূহ পুরুষ মানবদেহে সৃষ্টি হতে পারে ।

লক্ষণসমূহ :- * উক্ত রোগে আক্রান্ত রোগীর শুক্র অত্যন্ত তরল হয়। * রোগী ধীরে ধীরে শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়ে এবং শক্তিহীন ভাব প্রকাশ পেতে থাকে। * দেহের এবং চেহারার সৌন্দর্য নষ্ট হয়, চেহারার লাবণ্যতা কমে যায়, মুখ মলিন এবং চক্ষু কোঠরাগত হয়ে পরে। * দেহে প্রয়োজনীয় প্রোটিন এবং ভিটামিনের প্রবল অভাব পরিলক্ষিত। * রোগীর জীবনীশক্তি দুর্বল হয়ে পড়ে এবং নানা প্রকার রোগে অতি সহজেই আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। * দেহে যৌন হরমোন বা পিটুইটারি এড্রিনাল প্রভৃতি গ্রন্থির হরমোন কম নিঃসৃত হয়, যার ফলে দেহে যৌন ক্ষমতা কমে যায় এবং শুক্র ধীরে ধীরে পাতলা হতে থাকে। * দৈহিক এবং মানসিক দুর্বলতা বৃদ্ধি পায়, মাথা ঘোরে, বুক ধড় ফড় করে, মাথার যন্ত্রণা দেখা যায়। * আক্রান্ত ব্যক্তি সর্বদাই অস্থির বোধ করে, বসা থেকে উঠলেই মাথা ঘোরে এবং চোখে অন্ধকার দেখে, ক্ষুধাহীনতার ভাব দেখা দেয়। * পেনিস বা জননেদ্রীয় দুর্বল হয়ে যায়। * প্রসাবের আগে-পরে আঠালো জাতীয় ধাতু নির্গত হয়। * সমস্যা ধীরে ধীরে কঠিন আকার ধারণ করলে সামান্য উত্তেজনায় শুক্রপাত হয়, স্ত্রীলোক দর্শনে বা স্পর্শে শুক্রপাত ঘটে এমনকি মনের চাঞ্চল্যেও শুক্রপাত হয়। * পায়খানার সময় কুন্থন দিলে শুক্রপাত হয়। * স্মরণশক্তি কমে যায় এবং বুদ্ধিবৃত্তি লোপ পায়।

সমাধান/চিকিৎসা – পুরুষ মানবদেহের জন্য ক্ষয়জনিত সমস্যাসমূহ অত্যন্ত মারাত্মক হিসাবে বিবেচিত, বিশেষ করে আমাদের দেশের তরুন সমাজ এই সকল সমস্যাসমূহের অধিক বেশী ভুক্তভোগী হয়ে থাকে, যা পরবর্তীতে তাদের শারীরিক এবং মানসিক ভাবে দুর্বলতা সৃষ্টি সহ দাম্পত্য জীবনে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে । আর তাই, আমাদের সমাজের যে সকল পুরুষ ভাইয়েরা উক্ত সমস্যায় ভুক্তভোগী, তাদের উপযুক্ত সমাধানের মাধ্যম হিসাবে সুনামধন্য “ইউনানী আয়ুর্বেদা লিঃ” এর রয়েছে সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক এবং ভেষজ উপাদান দ্বারা আন্তর্জাতিক ভাবে স্বীকৃত আয়ুর্বেদিক ফর্মুলা অনুসারে তৈরিকৃত ”আয়ুর্বেদা সাজিন প্লাস”, যা সেবনে যৌন দুর্বলতা/ প্রসাবে ক্ষয় / ধাতু ক্ষয় / ধাতু দুর্বলতা / ধাতুঝরা তথা মানবদেহের যাবতীয় ক্ষয়জনিত সমস্যাসমূহের প্রয়োজনীয় সমাধানের মাধ্যমে শারীরিক এবং মানসিক ভাবে শতভাগ সুস্থতা ফিরিয়ে দিতে অত্যন্ত কার্যকরী ।সেবনকাল :- ৮০-৯০ দিন । প্রয়োজনীয়তা :- ১ কোর্স ।

ক্রিয়া :- যৌন দুর্বলতা ও প্রসাবে ক্ষয় বন্ধকরণ ও প্রসাবের আগে-পরে ধাতুক্ষয় বন্ধকরণ, অল্প উত্তেজনায় লিঙ্গ দিয়ে আঠালো পদার্থের নিঃসরণ বন্ধকরণ, ধাতুঝরা প্রশমনকারক, দ্রুত বীর্যপাত রোধকারক, ধাতু দৌর্বল্যতা দূরীকরণ, বাথরুমে কুন্থন দিলে প্রসাবের রাস্তায় ধাতু বের হওয়া বন্ধকরণ, শারীরিক অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সমূহের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিকারক, প্রফুল্লকারক, বলকারক, রোগ প্রতিরোধ শক্তিবর্ধক ।পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া :- সম্পূর্ণ পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়ামুক্ত । উক্ত প্রোডাক্টটির মূল্য :- মাত্র ১৫০ টাকা ।

অর্ডার এবং যোগাযোগের উপায় – আমাদের এই প্রোডাক্টটি আপনি বাংলাদেশের যে কোন প্রান্ত থেকে ঘরে বসেই সংগ্রহ করতে পারবেন । শুধুমাত্র একটি ফোনকল অথবা ম্যাসেজের মাধ্যমে আপনি আপনার নাম , ঠিকানা এবং মোবাইল নাম্বার পাঠিয়ে দিন আমাদের মোবাইল নাম্বারে । পরবর্তীতে আমরাই আমাদের এই প্রোডাক্টটি পৌঁছে দেওয়ার ব্যাবস্থা করব আপনার হাতের মুঠোয় । পুরো বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তে সার্ভিস চার্জ – মাত্র ১০০ টাকা। ফোন করুন – ০১৮৩৮২৯৭৭৪৫ /০১৭৭ ২৭২৭৪৮৫( সকাল ১১ – রাত ১০ টা )

সরাসরি সাক্ষাৎ এর ঠিকানা – সুজাপুর,সাভার, ঢাকা ( গুগোল ম্যাপে ডায়রেকশন দেখুন )

আমাদের প্রোডাক্টগুলোর কার্যকারিতা এবং নিশ্চয়তা- আমাদের প্রোডাক্টগুলো সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক এবং ভেষজ উপাদান দ্বারা নিজস্ব তত্তাবধায়নে এবং বৈজ্ঞানিক উপায়ে প্রস্তুতকৃত, আর উক্ত কারনেই আমাদের প্রোডাক্টের গুনগত মান এবং কার্যকারিতা প্রদানের ব্যাপারে আমরা রাখতে পারি শতভাগ আস্থা এবং আপনাদের দিতে পারি উপযুক্ত ফলফাল প্রাপ্তির পূর্ণ নিশ্চয়তা । আমাদের প্রোডাক্টগুলোতে ব্যাবহৃত কাঁচামাল এবং উপাদানসমূহ সম্পূর্ণ আমাদের নিজস্ব মাধ্যম দ্বারাই সংগ্রহকৃত, আর পরবর্তীতে উক্ত সংগ্রহকৃত উপাদানগুলোর ক্ষেত্র অনুযায়ী উপযুক্ত ব্যাবহার এবং গুনগত মান বজায় রেখে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত আয়ুর্বেদা ফর্মুলা অনুসরন করে পূর্ণ প্রস্তুতকরন প্রকিয়া সম্পন্ন করে ভোক্তা ও অধিকার আইনের ৩(১৯)(খ) এর ধারা বলে, উক্ত প্রোডাক্ট ব্যাবহারকারীকে ভোগ করতে দেয়া হয় । সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপাদান এবং উপযুক্ত নিয়ম অনুসরন দ্বারা তৈরি বিধায় আমাদের প্রোডাক্টগুলো কোন প্রকার পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া নেই বলে উল্লেখ করতে পারি।

সরাসরি সাক্ষাৎ এর ঠিকানা –সুজাপুর, সাভার, ঢাকা । এছাড়া আপনার যে কোন জিজ্ঞাসা কিংবা ক্ষেত্রনুযায়ী ”ইউনানী আয়ুর্বেদা লিঃ” এর প্রোডাক্টগুলোর নাম, গুনাগুন, কার্যকারিতা, নিশ্চয়তা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এবং প্রোডাক্টের অর্ডার কনফার্ম করতে অথবা স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোন পরামর্শের প্রয়োজনে আমাদের আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারমণ্ডলী রয়েছে আপনাদের পাশে ।
হেল্পলাইন – ০১৮৩৮ ২৯৭৭৪৫,০১৭৭ ২৭২৭৪৮৫( সকাল ১০ টা – রাত ১০ টা )।

বিদ্রঃ- পবিত্র মাহে রমজান মাস উপলক্ষে, আমাদের কোম্পানির সকল প্রোডাক্টের উপর রয়েছে ১০০০ টাকা মূল্য পর্যন্ত ছাড়, সীমিত সময়ের জন্য।

                                                                                  ইউনানী আয়ুর্বেদা লিঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

    Cart